বিশ্ব বিখ্যাত প্রতারক আব্দুর রহমান টিটু এখন কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায়। ভিডিও সহ (২য় পর্ব)

স্টাফ রিপোর্টারঃঃ আপনারা নিশ্চয়ই “রাসু খাঁ” নাম শুনেছেন। কিন্তু বিশ্ব বিখ্যাত প্রতারক আব্দুর রহমান টিটু’র নাম হয়ত শোনেননি। এই বিশ্ব বিখ্যাত প্রতারক আব্দুর রহমান টিটু’র কাজ কর্ম অবশ্য রাসু খাঁ’র মতন নয়। তবে “রাসু খাঁ’র” থেকেও ভয়ঙ্কর কাহিনী রয়েছে এই প্রতারক আব্দুর রহমান টিটুর।

প্রতারক আব্দুর রহমান টিটুর কাজ কেবল ফেসবুক, ইমো ও ওয়াটসআপে প্রেম এবং খুবই অল্প সময়ের মধ্যেই বিয়ে করা। লন্ডনে বাড়ি আছে, সেখানে বিলাস বহুল ফাইভষ্টার হোটেল আছে। এমন সব কল্পিত কাহিনী শুনিয়ে ফেসবুকে চ্যাটিং করে ডিভোর্সী ও বিধবা নারীদের সাথে। আর খুবই অল্প সময়ের মধ্যেই প্রেম থেকে বিয়ে। এর পর বলে, আমার ঢাকার বাড়ি বিক্রি করে ৫কোটি টাকা আনতে হবে।

এ জন্য যেখানে বিয়ে করে সেখানকার শালা সুমুন্দিদের একাউন্ট নাম্বার চায়। এরপর বাড়ি বিক্রির কল্পিত গল্প শোনাতে থাকে ঐ সব শ্বশুর বাড়ির আত্মীয় স্বজনদের কাছে। নিজেকে গণপূর্ত সচিবের পুত্র বলে পরিচয় দানকারী আব্দুর রহমান টিটুর একটি প্রতারক চক্র রয়েছে। তার সেই প্রতারক চক্রের তিনজন সদস্যের ছবি আমরা আপাতত তুলে ধরছি। এবং বর্তমান পর্যন্ত তার বিবাহের সংখ্যা ২০টি।

See VDO of fraud Abdur Rahman Titu. 

 

আর এই ২০টি শ্বশুর বাড়ির আশপাশ দিয়ে তিনি হাতিয়ে নেন টাকা। কিভাবে বিয়ে করেন? কিভাবে টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায় টিটু এমন সব মজার মজার সংবাদ নিয়ে আমাদের ৩য় পর্বে হাজির হবো পাঠকদের সামনে। তবে এই পর্বে আব্দুর রহমান টিটুর অনেকগুলি ফেসবুকের মধ্যে জোৎন্মা রাত নামের ফেসবুকে রয়েছেন ১৮২ জন নারী বন্ধু।

আমাদের লেখনীর মাধ্যমে তাদের সতর্ক করা হচ্ছে। আপনারাও এই প্রতারকের হাতে ধরা পড়ার আগেই ছবি দেখে নিজেদের বাঁচান।প্রতারক আব্দুর রহমান টিটু এখন কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় অবস্থান করছে।## চলবে……