বাগেরহাটে তিন দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন

এমডি আবু জাফর বিশেষ প্রতিনিধিঃঃ বাগেরহাট বর্তমান সরকার সময়ে দেশের উন্নয়নমুলক কর্মকান্ড জনসাধারন কে জানান দিতে ও উন্নয়নে উৎসাহ প্রদানে বাগেরহাট জেলা শহরে ৩দিন ব্যাপী শুরু হয়েছে উন্নয়ন মেলা। বিগত বছরের তুলনায় এবছর একটু জাকজমক ভাবে মেলার আয়োজন করা হয়েছে সরকারীভাবে। বৃহষ্পতিবার সকালে এ মেলা উপলক্ষে শহীদ মিনার চত্তর থেকে একটি র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে শালতলাস্থ জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে মেলা প্রাঙ্গনে এসে শেষ।

দুপুরের দিকে জেলা পরিষদ অডিটরিয়াম ফটকে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এবং লাল ফিতা কেটে এ মেলার উদ্বাধন করেন মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ। পরে বাগেরহাট জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অডিটোরিয়াম ভবনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব ডাঃ মোজাম্মেল হোসেন এমপি,অ্যাডঃ মীর শওকাত আলী বাদশা এমপি, প্রবাসী কল্যাণ বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ড. নমিতা হালদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বর্তমান ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আফজাল প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বাগেরহাটের সকল সরকারি দপ্তরের প্রধানগণ, ও সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভায় মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের সময় দেশের যে উন্নয়ন হয়েছে তা সবাই বুঝতে পারে। এখন আর কাজের লোক পাওয়া যায়না। ভিক্ষুকও খুঁজে পাওয়া যায় না। সবাই এখন সুখে আছে। বিশেষ করে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের অকল্পনীয় উন্নতি হয়েছে। ভেঙ্গেপড়া মংলা বন্দরকে এই সরকার জীবন দিয়েছে। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে বর্তমান সরকারকে পুনরায় ক্ষমতায় নিতে হবে বলে তিনি উচ্চারন করেন। এ বছর উন্নয়ন মেলায় এলজিইডি, ফ্যাসিলিটিজ, গনপূর্ত, বিদ্যুৎ কৃর্তপক্ষ ও বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকসহ বাগেরহাটের বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ৭৫ টি স্টল নিয়ে বসেছে।

মেলায় প্রধান আকর্ষন ছিল বাগেরহাট মেরিন ইনষ্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের আবিস্কৃত ড্রোন। জেলা প্রশাসনের দেয়া তথ্যঅনুযায়ী ৩ দিনের মেলার অনুষ্ঠান মালায় রয়েছে সরকারের উন্নয়নমূলক প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী, সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, রচনা প্রতিযোগিতা, পটগান ও পুরস্কার বিতরণ। এখানের মেলা আয়োজকরা জানান, সহ¯্রাব্দ উন্নয়ন অভীষ্ট সফলভাবে অর্জিত হয়েছে এবং টেকসই উন্নয়ন যথাযথভাবে অর্জনের মাধ্যমে ভিশন ২০২১ ও রুপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে দেশের বহুমূখি উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পর্কে জনগনকে অবহিত করার লক্ষ্যে এই মেলার আয়োজন করা হয়েছে। ##