ফরিদপুরে দুর্বৃত্তরা কলা বাগান কেটে দিয়েছে চরভদ্রাসন নিবাসীর

ফরিদপুরে দুর্বৃত্তরা কলা বাগান কেটে দিয়েছে চরভদ্রাসন নিবাসীর

ফরিদপুর চরভদ্রাসন থেকেঃ চরভদ্রাসন উপজেলার গাজিরটেক ইউনিয়নের চর অযোধ্যা মৈজদ্দিন মোল্যা ডাংগি নিবাসী মো:ফজল বেপারীর কলার বাগান কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
গত ২২ জানুয়ারি সোমবার রাত্রে এই নির্মম কাজটি করে দুর্বৃত্তর।

জানাযায় গেল বছর ২ কি.মি দুরে পার্শবর্তী নগরকান্দা উপজেলার কুঞ্জনগর ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের কাশেমনগর মাদ্রাসার পাশে প্রায় ৫বিঘা জমি নিয়ে মো:ফজল কলার বাগান করে। প্রায় ২হাজার কলার চারা লাগায় সে।চারা বড় হয়ে কলা হওয়াকালীন সময় গত রমজানে দুর্বৃত্তরা সব গাছ কেটে দেয়।কিন্তু থানায় গেলে সাক্ষির অভাবে সে কোন মামলা করতে পারে না।
কিছুদিন পর সে আবার কলাবাগান শুরু করে ৪বিঘা জমিতে।
এবার গাছের সংখা পনেরো’শো।গাছ বড় হয়ে কলা ধরার পর গত পড়শু আবার ও তার প্রায় ৭৫০ টি কলাগাছ কেটে দেয় দুর্বৃত্তরা।
মোবাইলে সমস্যা থাকায় গতকাল ফজল ব্যাপারী বিষয়টি জানতে পারেনি।আজ সে জানতে পেরে ছুটে যায়।এবং দেখে তার প্রায় ২ বিঘা জমির কলাগাছ কাটা।
এবার ও সে নিরুপায় কারন সে জানে না তার কলা গাছ কে বা কারা কাটছে।হতাশ হয়ে জমির ভিতর বসে পরে।কারন তার প্রধান পেশাই কৃষি কাজ।
কথা বললে সে জানায় “আমি ভাবতেও পারিনি যে আমার কলাগাছ আবার কেটে দিবে,সবকিছু হারিয়ে ফেললাম।”
ছোট এক ছেলে আর এক মেয়ের সংসার তার।এদিকে জমির মালিক এসে বকাবাজি করে বলতে থাকে- তোকে জমি লিজ দিয়ে আমার মান সম্মান শেষ,তোর এত শত্রু কোথাথেকে আসল”।থানায় অভিযোগের বিষয়ে জানতে চায়লে সহজ সরল ফজল বেপারী বলেন “কার নামে কি অভিযোগ করুম,অভিযোগ করলেও কোন সমাধান হবে না”।