রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন ভাতার দাবিতে বাগেরহাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌর কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশনের অবস্থান ধর্মঘট।With Video.

 

 

 

এমডি আবু জাফর, বিশেষ প্রতিনিধিঃঃ (২৮শে জানুয়ারি) রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন ভাতার দাবিতে বাগেরহাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ আবারও অনশনে বসেছেন। সম্প্রতি ঢাকায় সারা বাংলাদেশের প্রায় ৩২৭টি পৌরসভা থেকে কর্মকর্তা কর্মচারিরা তাদের ন্যায্য এই দাবিতে অনশনে বসেছিলেন। কিন্তু ঐ সময় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তাদের দাবি দাওয়া মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়ে তারা স্ব-স্ব পৌরসভায় ফিরে যান এবং যথারীতি তাদের সেবামূলক কাজে অত্ম নিয়োগ করেন।

See Video.

কিন্তু পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আর কোন সাড়া না মেলায় সারা দেশের পৌর কর্মকর্তা কর্মচারীরা আবারও উত্তাল হয়ে ওঠে। তারই ধারাবাহিকতায় সারা দেশের ৩২৭টি পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীদের ন্যায় বাগেরহাট পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীরা বাগেরহাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনশন করছেন।

 

 

 

এই রিপোর্ট লেখা পর্য্যন্ত বাগেরহাট পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী শ্রী রঞ্জন কান্তি গুহ-কে এবিষয়ে জোরালো বক্তব্য দিতে দেখা যায়। রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন ভাতার দাবিতে বাগেরহাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশনের দাবি যৌক্তিক বলে আমরা সংবাদকর্মী তথা দেশের মানবাধিকার সংগঠন গুলি মনে করেন। কেননা!

শুধু আমাদের দেশে নয় সারা বিশ্বে এই পৌরসভাগুলি সর্বদা মানবতার সেবায় সব থেকে বড় ভূমিকা রেখে আসছে। তাই তাদের সহিত আমাদের দেশের সরকার বিমাতা সূলভ আচারণ করে আসছেন। অনশন কালে আমাদের সংবাদকর্মীদের নিকট পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অজিত বাবু বলেন। আমরা বাগের হাট পৌর সভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বাগেরহাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে তিনদিন কর্ম বিরতী ও অনশন পালন করছি। আমাদের এই আন্দোলন অব্যহত থাকবে বলেও জানান তিনি। আগামী ৩০শে জানুয়ারী ২০১৮ তারিখ পর্য্যন্ত তাদের এই অনশন চলবে।##