শ্রীলঙ্কার ৩১২ রানের লিড

শ্রীলঙ্কার ৩১২ রানের লিড

প্রথম ইনিংসে খুব একটা সুবিধা করতে না পারলেও স্বাগতিক বাংলাদেশকে মাত্র ১১০ রানে গুটিয়ে দিয়ে শ্রীলঙ্কান বোলাররা দারুণ সাফল্য ঘরে তুলেছেন। প্রথম ইনিংসে ১১২ রানের লিড নিয়ে শ্রীলঙ্কা তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি। দলীয় ১৯ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারিয়ে বসা অতিথি দলটি ৮০ রানে হারায় তিন উইকেট। এর কিছুক্ষণ পর শ্রীলঙ্কা চা বিরতিতে যায় ১৯৯ রানের লিড নিয়ে।

চা বিরতির পর শ্রীলঙ্কা ব্যাট করতে নেমে ভালোই খেলছিল। ওপেনার দিমুথ করুনারত্নে ও অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমাল ভালোই এগিয়ে নিচ্ছিলেন দলকে। তাঁরা ২০০ রানের লিডও পার করেন। এর পরই করুনারত্নেকে সাজঘরে ফেরান মেহেদী হাসান মিরাজ। পরে শ্রীলঙ্কা যখন বড় লিডের দিকে এগোচ্ছে, তখন আবার প্রতিরোধ ভাঙেন মিরাজ। তিনি ফেরান চান্দিমালকে। কিছুক্ষণ পর সাজঘরে ফেরেন নিরঞ্জন ডিকওয়েলা। তাঁকে আউট করেন তাইজুল ইসলাম। এর পর শ্রীলঙ্কা আরো একটি উইকেট হারিয়েছে ঠিক,  তবে তারা সংগ্রহ করে ফেলেছে ২০০ রান। তাই দিন শেষে বাংলাদেশের সামনে রেখে গেছে ৩১২ রানের বিশাল লিড। মিরপুরের উইকেটে এই রান টপকাতে পারবে কি বাংলাদেশ, সেটাই এখন প্রশ্ন।

অবশ্য ঢাকা টেস্টের প্রথম দিন বল হাতে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। দুর্দান্ত বোলিং করে শ্রীলঙ্কাকে মাত্র ২২২ রানে বেঁধে ফেলেছিলেন আবদুর রাজ্জাক, তাইজুল ইসলাম। কিন্তু নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে সেভাবে জ্বলে উঠতে পারননি মাহমুদউল্লাহর দল। গতকাল প্রথম দিনের খেলায় বাংলাদেশ হারিয়েছিল চারটি উইকেট। আজ প্রথম সেশনেই বাংলাদেশ হারিয়েছে বাকি ছয়টি উইকেট।

অন্য ব্যাটসম্যানরা যেখানে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন, সেখানে ৩৮ রানে অপরাজিত থেকে বাংলাদেশের পক্ষে একাই লড়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার করা ২২২ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১২ রান সংগ্রহ করতেই বাংলাদেশ হারিয়েছিল প্রথম সারির তিন ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিমের উইকেট। দিনের শেষ পর্যায়ে ইমরুল কায়েসও ফিরেছিলেন ১৯ রান করে। আজ দ্বিতীয় দিনের শুরুতে লিটন দাস সাজঘরে ফিরে গেছেন ২৫ রান করে। ১৭ রান করে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ঘুরে দাঁড়ানোর। কিন্তু সেই ১৭ রানেই সাজঘরে ফিরতে হয়েছে বাংলাদেশ অধিনায়ককে। সাব্বির রহমান আউট হয়েছেন শূন্য রানে। ১ রান করে এসেছে আবদুর রাজ্জাক ও তাইজুল ইসলামের ব্যাট থেকে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে কুশল মেন্ডিসের ৬৮, রোসেন সিলভার ৫৬, দিলরুয়ান পেরেরার ৩১ ও আকিলা ধনঞ্জয়ের ২০ রানের ইনিংসগুলোতে ভর করে স্কোরবোর্ডে ২২২ রান জমা করেছিল শ্রীলঙ্কা।

দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে দারুণ বোলিং করে নজর কেড়েছেন আবদুর রাজ্জাক। চারটি উইকেট নিয়েছেন অভিজ্ঞ এই বাঁহাতি স্পিনার। চারটি উইকেট পেয়েছেন আরেক স্পিনার তাইজুল ইসলামও। মুস্তাফিজুর রহমানের ঝুলিতে গেছে বাকি দুটি উইকেট।

Categories: খেলাধুলা

Tags: