ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশনে ট্রেনে কাটা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

ঈশ্বরদী প্রতিনিধ : ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশনে ট্রেনে কাটা পড়ে গতকাল বুধবার সকালে আল-আমিন হোসেন (২২) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। সে পাকশি বাঘইল সরদার পাড়া এলাকার মৃত রাকিবুল ইসলাম সরদারের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আল-আমিন ঢাকায় কাঠ মিস্ত্রির কাজ করতেন। ঢাকা থেকে লালমনি এক্্রপ্্েরস ট্রেনে চড়ে ঈশ্বরদী আসছিলেন। সকাল আটটায় ট্রেনটি ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশন অতিক্রম করার সময় চালক গতি কমান। এ সুযোগে আল-আমিন চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
বাঘইল গ্রামের তারিক মাহমুদ জানান, আল-আমিন ঢাকার একটি ফার্নিচারের দোকানে নকশার কাজ করতেন। আগামী শুক্রবার তার বন্ধু শিপলুর বিয়ে উপলক্ষে সে বাড়িতে আসছিলেন। পিতার অবর্তমানে আল-আমিন ছিল একমাত্র উপার্জন ব্যক্তি। পরিবারে তার মা ও এক ভাই রয়েছে। আল-আমিনকে হারিয়ে তার মা পাগল প্রায়।
আল-আমিনের মরদেহ বাঘইলের নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আল-আমিনের মৃত্যুর খবরে বাঘইল এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশন মাষ্টার কাজী গোলাম ফেরদৌস জানান, লালমনি এক্্রপ্্েরস ট্রেনের ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশনে স্টপেজ নেই। চালক ট্রেনের গতি কমানোর সাথে সাথে দ্রƒত নামতে গিয়ে কাটা পড়েন আল-আমিন।
ঈশ্বরদী জিআরপি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুবীর দত্ত বলেন, লালমনি এক্্রপ্্েরস ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে কাটা পড়েন আল-আমিন। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদস্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Categories: প্রধান নিউজ,রাজশাহী

Tags: