নম্বর ঠিক রেখেই অপারেটর পরিবর্তন করার নিয়ম

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক : মুঠোফোন গ্রাহকদের জন্য সোমবার থেকে চালু হলো এমএনপি সেবা। এর মাধ্যমে গ্রাহকরা নম্বর পরিবর্তন না করেই অপারেটর বদল করতে পারছেন। তবে, প্রতিবার অপারেটর বদলের ক্ষেত্রে গ্রাহককে খরচ করতে হচ্ছে ১৫৮ টাকা।

অপারেটর পরিবর্তনের জন্য প্রথমেই গ্রাহককে তার সংশ্লিষ্ট মোবাইল ফোনের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে যেতে হবে। সেখানে কর্তব্যরত সেবাকারীরাই গ্রাহককে  প্রয়োজনীয় ফি প্রদান ও তথ্যবালী করে পুরনো নম্বর সম্বলিত নতুন সিম দিয়ে দেবে।

কত ফি লাগবে
অপারেটর পরিবর্তন করতে নম্বর প্রতি ফি ৫৭ টাকা ৫০ পয়সা (ভ্যাটসহ)। নম্বর ঠিক থাকলেও নিতে হবে নতুন সিম কার্ড। এ জন্য লাগবে সিম পরিবর্তন বা রিপ্লেসমেন্ট কর ১০০ টাকা। অর্থাৎ গ্রাহককে দিতে হবে ১৫৭ টাকা ৫০ পয়সা।

তবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সেবা চালু করতে গ্রাহককে আরো ১০০ টাকা বাড়তি দিতে হবে। এর সঙ্গে যোগ হবে ১৫ শতাংশ ভ্যাট।

কিছু শর্তাবলী
নতুন সিমে এই সুবিধা চালু হতে সময় লাগবে সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা। সেবা গ্রহণের পরবর্তী ৯০ দিন পর্যন্ত অপারেটর পরিবর্তন করা যাবে না।

বিটিআরসি বলছে, এই উদ্যোগে অপারেটরদের মধ্যে প্রতিযোগিতা বাড়বে। সরকারের এমন উদ্যোগ সাধুবাদ জানালেও বাড়তি খরচের জন্য এই সেবার জনপ্রিয় হওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন গ্রাহকরা।

২০১৩ সালে মুঠোফোন গ্রাহকদের জন্য মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি বা এমএনপি সেবা চালুর উদ্যোগ নেয়, সরকার। এর চার বছর পর নানা যাচাই-বাছাই শেষে চালু হলো এই সেবা।

Categories: জাতীয়,টপ নিউজ,তথ্য প্রযুক্তি,প্রধান নিউজ

Tags: