ঢাকা ০১:৫৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ ::
যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম আইএমও এর প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা’র আদর্শ বাস্তবায়ন তরুনদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে নড়াইল-১আসনে আবারো আ’লীগের মনোনয়ন পেলেন বিএম কবিরুল হক মুক্তি খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা ছিলেন বহুমাত্রিকগুনের অধিকারী : অধ্যাপক ড. এম শমসের আলী ফের নৌকার টিকিট পেলেন রাজী মোহাম্মদ ফখরুল পি‌রোজপু‌রে ফেজবু‌কে স্টাটার্স দি‌য়ে অনার্স পড়ুয়া ছা‌ত্রের আত্মহত্যা যেভাবে জানা যাবে এইচএসসির ফল > How to know HSC result নেত্রকোণা -২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ওমর ফারুক জনপ্রিয়তার শীর্ষে চাটখিলে যুবলীগের ৫১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত দিনব্যাপী গণসংযোগ করলেন নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহ্ কুতুবউদ্দিন তালুকদার রুয়েল

সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচনসহ সকল কার্যক্রমের উপর আদালতের স্থিতাদেশ জারি 

সোহাগ হাসান জয়, সিরাজগঞ্জ।
  • আপডেট সময় : ০৮:১৮:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ ২০২৩ ১২৮ বার পড়া হয়েছে
দেশের সময়২৪ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
ঐতিহ্যবাহী সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের যাবতীয় কার্যক্রমের উপর স্থিতাদেশ (স্থগিত) দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আগামী ১৪ মার্চ পরবর্তি শুনানীর তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের কোন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনসহ যেন কোন কার্যক্রম না করতে পারে এজন্য উভয়পক্ষকে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেয় আদালত।
বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) দুপুরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সিনিয়র সহকারি জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ সুলতান প্রধান এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে বিচারকের নিকট বিবাদী পক্ষ সময় প্রার্থনা করলে আদালত ৫ দিনের সময়ও মঞ্জুর করেন।
এর আগে গত ৭ মার্চ সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নতুন অন্তর্ভূক্ত সদস্যদের পক্ষে মামলার বাদী দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি জেহাদুল ইসলাম গং নির্বাচনের উপর অন্তবর্তিকালীন নিষেধাজ্ঞার আবেদন করে।
মামলাটি আমলে নিয়ে সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের উপর কেন নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবেনা জানতে চেয়ে আহবায়ক কমিটি, নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ট্রাইবুনালের ৯ সদস্যকে আগামী ২৪ ঘন্টার কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সিনিয়র সহকারি জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ সুলতান প্রধান।
বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় মামলার বাদী দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি জেহাদুল ইসলাম জানান, দীর্ঘ সময় ধরে তারা সাংবাদিকতা করছেন। প্রেসক্লাবে সদস্য পদপ্রাপ্তির জন্য আবেদন করা হয়। কিন্তু বারবারই একটি গ্রুপ প্রেসক্লাবকে কুক্ষিগত করে রাখা ও সদস্য নেওয়ার ব্যাপারে বিরোধিতা করে আসছিল। তাদের সকল বাঁধা বিপত্তি পেরিয়ে বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটি নতুন সদস্য নেওয়ার জন্য সার্চ কমিটি গঠন করে আবেদনকারীদের সকল কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে ১৯জনকে সদস্যপদ প্রদান করেন। এতে একটি গ্রুপ ষড়যন্ত্র ও বিরোধিতা করে বৈধভাবে নেওয়া ১৯ সদস্যকে বাদ দিয়ে অবৈধভাবে একটি বৈঠক করে আহবায়ক কমিটি করে। এমনকি বৈধভাবে নেওয়া ১৯জন সদস্যকে বাদ দিয়ে আহবায়ক কমিটি চূড়ান্ত ভোটার প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ট্রাইবুনাল গঠন করে আগামী ২৩ মার্চ পাতানো নির্বাচন করার দিনক্ষণ ধার্য করে।
মামলায় আরও উল্লেখ করা হয়, এমন পরিস্থিতিতে বিবাদীদের সদস্য করার আগে নির্বাচন হলে বিবাদীরা ক্ষতিগ্রস্থ ও সুবিধা-বঞ্চিত হবেন বলে উল্লেখ করেছেন। এমতাবস্থায় ১৯জনের পক্ষে অবৈধ প্রক্রিয়ায় সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবে দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের উপর কেন নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবেনা মর্মে আদালতে
অন্তবর্তিকালীন নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আহবায়ক কমিটি, নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ট্রাইবুনালের ৯ সদস্যদেরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন। বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকালে শুনানীকালে বিচারকের কাছে সময় প্রার্থনা করলে আদালত ৫দিনের সময় মঞ্জুর করে।
প্রসঙ্গত, সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে নতুন অন্তর্ভুক্ত ১৯ জন সদস্যকে বাদ দিয়ে প্রেসক্লাবের নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে অগঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় আহবায়ক কমিটির করে অবৈধ নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু করায় সিরাজগঞ্জের গণমাধ্যম কর্মীদের মধ্যে নানা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। একই সঙ্গে শহরজুড়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।
স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ঐতিহ্যবাহী সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক এমন দাবী জানিয়েছে সিরাজগঞ্জে কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচনসহ সকল কার্যক্রমের উপর আদালতের স্থিতাদেশ জারি 

আপডেট সময় : ০৮:১৮:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ ২০২৩
ঐতিহ্যবাহী সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের যাবতীয় কার্যক্রমের উপর স্থিতাদেশ (স্থগিত) দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আগামী ১৪ মার্চ পরবর্তি শুনানীর তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের কোন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনসহ যেন কোন কার্যক্রম না করতে পারে এজন্য উভয়পক্ষকে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেয় আদালত।
বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) দুপুরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সিনিয়র সহকারি জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ সুলতান প্রধান এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে বিচারকের নিকট বিবাদী পক্ষ সময় প্রার্থনা করলে আদালত ৫ দিনের সময়ও মঞ্জুর করেন।
এর আগে গত ৭ মার্চ সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নতুন অন্তর্ভূক্ত সদস্যদের পক্ষে মামলার বাদী দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি জেহাদুল ইসলাম গং নির্বাচনের উপর অন্তবর্তিকালীন নিষেধাজ্ঞার আবেদন করে।
মামলাটি আমলে নিয়ে সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের উপর কেন নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবেনা জানতে চেয়ে আহবায়ক কমিটি, নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ট্রাইবুনালের ৯ সদস্যকে আগামী ২৪ ঘন্টার কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সিনিয়র সহকারি জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ সুলতান প্রধান।
বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় মামলার বাদী দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি জেহাদুল ইসলাম জানান, দীর্ঘ সময় ধরে তারা সাংবাদিকতা করছেন। প্রেসক্লাবে সদস্য পদপ্রাপ্তির জন্য আবেদন করা হয়। কিন্তু বারবারই একটি গ্রুপ প্রেসক্লাবকে কুক্ষিগত করে রাখা ও সদস্য নেওয়ার ব্যাপারে বিরোধিতা করে আসছিল। তাদের সকল বাঁধা বিপত্তি পেরিয়ে বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটি নতুন সদস্য নেওয়ার জন্য সার্চ কমিটি গঠন করে আবেদনকারীদের সকল কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে ১৯জনকে সদস্যপদ প্রদান করেন। এতে একটি গ্রুপ ষড়যন্ত্র ও বিরোধিতা করে বৈধভাবে নেওয়া ১৯ সদস্যকে বাদ দিয়ে অবৈধভাবে একটি বৈঠক করে আহবায়ক কমিটি করে। এমনকি বৈধভাবে নেওয়া ১৯জন সদস্যকে বাদ দিয়ে আহবায়ক কমিটি চূড়ান্ত ভোটার প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ট্রাইবুনাল গঠন করে আগামী ২৩ মার্চ পাতানো নির্বাচন করার দিনক্ষণ ধার্য করে।
মামলায় আরও উল্লেখ করা হয়, এমন পরিস্থিতিতে বিবাদীদের সদস্য করার আগে নির্বাচন হলে বিবাদীরা ক্ষতিগ্রস্থ ও সুবিধা-বঞ্চিত হবেন বলে উল্লেখ করেছেন। এমতাবস্থায় ১৯জনের পক্ষে অবৈধ প্রক্রিয়ায় সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবে দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের উপর কেন নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবেনা মর্মে আদালতে
অন্তবর্তিকালীন নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আহবায়ক কমিটি, নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনী ট্রাইবুনালের ৯ সদস্যদেরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন। বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকালে শুনানীকালে বিচারকের কাছে সময় প্রার্থনা করলে আদালত ৫দিনের সময় মঞ্জুর করে।
প্রসঙ্গত, সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে নতুন অন্তর্ভুক্ত ১৯ জন সদস্যকে বাদ দিয়ে প্রেসক্লাবের নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে অগঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় আহবায়ক কমিটির করে অবৈধ নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু করায় সিরাজগঞ্জের গণমাধ্যম কর্মীদের মধ্যে নানা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। একই সঙ্গে শহরজুড়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।
স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ঐতিহ্যবাহী সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক এমন দাবী জানিয়েছে সিরাজগঞ্জে কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীরা।