ঢাকা ০৯:২৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ ::
যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম আইএমও এর প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা’র আদর্শ বাস্তবায়ন তরুনদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে নড়াইল-১আসনে আবারো আ’লীগের মনোনয়ন পেলেন বিএম কবিরুল হক মুক্তি খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা ছিলেন বহুমাত্রিকগুনের অধিকারী : অধ্যাপক ড. এম শমসের আলী ফের নৌকার টিকিট পেলেন রাজী মোহাম্মদ ফখরুল পি‌রোজপু‌রে ফেজবু‌কে স্টাটার্স দি‌য়ে অনার্স পড়ুয়া ছা‌ত্রের আত্মহত্যা যেভাবে জানা যাবে এইচএসসির ফল > How to know HSC result নেত্রকোণা -২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ওমর ফারুক জনপ্রিয়তার শীর্ষে চাটখিলে যুবলীগের ৫১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত দিনব্যাপী গণসংযোগ করলেন নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহ্ কুতুবউদ্দিন তালুকদার রুয়েল

নারীর জন্য প্রয়োজনীয় কিছু স্বাস্থ্য পরীক্ষা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১৮:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২ ৩০২ বার পড়া হয়েছে

নারীর জন্য প্রয়োজনীয় কিছু স্বাস্থ্য পরীক্ষা

দেশের সময়২৪ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মা, বোন, স্ত্রী কিংবা প্রেমিকা- যে নামেই ডাকা হোক নারীর সঙ্গে মায়া, মমতা আর ভালো’বাসার রয়েছে ভিন্নরকম যোগসূত্র। পরিবার কিংবা কাছের মানুষ’টির জন্য সর্বস্ব দিয়ে ভালো রাখার চেষ্টার ত্রুটি থাকে না তাদের। কিন্তু নিজের বেলায়? নিজের যত্নের বরা’বরই বড্ড আনাড়ি এই মানুষগুলো।

তাই স্বাস্থ্য সমস্যায় নারী’দেরই বেশিরভাগ ভুগতে দেখা যায় বিভিন্ন সময়। তাই নারী দিবসে আনন্দ’ধারার বিশেষ আয়োজনের স্বাস্থ্য’লেখায় থাকছে নারীর জন্য প্রয়োজনীয় ১০ স্বাস্থ্যপরীক্ষার কথা।

সাধারণত চল্লিশোর্ধ্ব নারী’দের এই ধরনের সমস্যা দেখা গেলেও এখন স্বাস্থ্যের প্রতি অব’হেলাসহ বিভিন্ন কারণে বেশ অল্প বয়সেই বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যায় ভুগছেন নারী’রা। তাই এখনই সময় আগেভাগে জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার।

থাইরয়েডে সক্রিয়তা

বর্তমান সময়ে যে স্বাস্থ্য সমস্যাটি আজ’কের নারী বেশি মোকাবেলা করে থাকেন তা হলো থাই’রয়েড সমস্যা। কিছু মহিলা হাইপোথ্যারয়ডিজমে ভোগেন আবার কিছু মহিলা হাইপারথ্যারয়ডিজমে।

পা ফোলা, হাত-পা ও জয়েন্ট’গুলোতে ব্যথা থাইরয়েড সমস্যার সাধারণ উপসর্গ। এছাড়া অতিরিক্ত ওজন থাকলেও হাইরয়েডের পরীক্ষা করিয়ে নেয়া উচিত আগেভাগেই।

প্যাপ স্মিয়ার

নারী’দের মধ্যে যেসব ক্যান্সারের ঝুঁকি দিনে দিনে বাড়ছে তার মধ্যে অন্যতম হলো সার্ভি’ক্যাল ক্যান্সার। আর সার্ভিক্যাল ক্যান্সার রোধেই করা হয় প্যাপ স্মিয়ার পরীক্ষাটি। এটি একটি অত্যন্ত সহজ পরীক্ষা যা অধিকাংশ সাধারণ মানুষই উপেক্ষা করে থাকে।

প্যাপ স্মিয়ার পরীক্ষা চল্লিশোর্ধ্ব মহিলা’দের আবশ্যক কারণ এই পরীক্ষা সার্ভিকাল ক্যান্সারে’র ঝুঁকি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। তিরিশ বছরের ঊর্ধ্বে মহিলা’রা এই পরীক্ষা শুরু করতে পারেন কিন্তু চল্লিশ পেরোলে এই পরীক্ষা দুই-তিন বছরে একবার করা খুবই আবশ্যক।

ম্যামোগ্রাম

স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত নারীর সংখ্যা বিশেষত চল্লি’শোর্ধ্ব মহিলাদের মধ্যে বৃদ্ধি পাচ্ছে। পুরো বিশ্ব জুড়েই। তাই স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধ করার জন্য সবচেয়ে ভালো উপায় হলো একটি সহজ ম্যামোগ্রাম পরীক্ষা। যদি পরিবারে ক্যান্সা’রের ইতিহাস থেকে থাকে তবে এই পরীক্ষা করে নেয়া অতি আবশ্যক।

হৃদরোগ

চল্লিশ পেরোলেই নিয়’মিত হৃদযন্ত্রের পরীক্ষা ও হৃদস্পন্দন নিয়ন্ত্রণে রাখা প্রয়োজন। নিয়মিত চেকআপে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট থেকে আকস্মিক মৃত্যু প্রতিরোধ করা যায়। এছাড়া হৃদ’যন্ত্র সুস্থ রাখে এমন খাবারগুলো সম্পর্কে জেনে নিয়ে সেই অনুযায়ী খাদ্যা’ভ্যাস ঠিক করে নিতে হবে কোলেস্টেরল ও অন্যান্য সমস্যা থাকলে।

হাড়ের ঘনত্ব/ভিটামিন ডি স্বল্পতা

বয়স বাড়ার সঙ্গে হাড়ের অবনতি শুরু হতে থাকে। বিশেষত নারী শরীরের। চল্লি’শের পরে হাড়ের ঘনত্বের পরীক্ষা অত্যন্ত দরকারী। এটি অস্থি’ভঙ্গ প্রতিরোধ করে। এছাড়া ভিটামিন ডি-এর অভাবে হাড়ে ক্ষয় এবং অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি বাড়ে।

চল্লিশোর্ধ্ব মহিলাদের ভিটামিন ‘ডি’-এর বেশি প্রয়োজন যা ক্যাল’সিয়াম শোষণ করে এবং হাড়ের ক্ষয় রোধ করে। তাই ভিটামিন ডি-এর মাত্রা পরীক্ষা করা খুবই প্রয়োজন।

ডায়াবেটিস

চল্লিশোর্ধ্ব মহিলারা টাইপ-টু ডায়াবেটিসে বেশি আক্রান্ত হন। শরীর গ্লুকোজের সমত্ব বজায় রাখার জন্য যথেষ্ট ইনসুলিন উৎপাদন করতে পারে না, তাই ডায়াবেটিসের হানা রুখতে প্রয়ো’জনীয় পরীক্ষা অত্যন্ত জরুরি। খাদ্যাভ্যাস ও নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রমও জরুরি সবার ভালো থাকার স্বার্থেই।

ওভারিয়ান ক্যান্সার

মহিলা’দের মধ্যে ওভারিয়ান ক্যান্সার বেশিরভাগই মেনোপজের পরে দেখা যায়। তাই ওভারিয়ান ক্যান্সারের ঝুঁকি এড়াতে ঋতুজরার আগেই মহিলা’দের নির্দিষ্ট পরীক্ষা করিয়ে নেয়া উচিত।

রক্তচাপ ও চোখ

মহিলা’দের মাসিক বন্ধ হওয়ার পরে উচ্চ রক্তচাপের প্রবণতা খুব বেশি মাত্রায় দেখা যায়। তাই তার আগেই এটিকে নিয়ন্ত্রণে আনা প্রয়োজন। চল্লিশে পৌঁছলেই নিয়মিত পরীক্ষা’র মাধ্যমে রক্তচাপে নজর রাখা আবশ্যক।

এছাড়া বয়সের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দৃষ্টিশক্তি হ্রাস পেতে শুরু করে। দৃষ্টি ঝাপসা এবং চোখ শুষ্ক হতে আরম্ভ করে। এছাড়া ছানি বা গ্লুকোমা ক্রমে দেখা দিতে পারে আর তাই চল্লিশ পেরো’লেই নিয়মিত চোখের পরীক্ষা ভীষণ জরুরি। ডায়াবেটিস থাকলে চোখের সমস্যার ব্যাপারে অতিরিক্ত সচেতন হতে হবে অবশ্যই।

কিডনি

নীরব ঘাতক হিসেবে কাজ করে যাওয়া রোগগুলোর মধ্যে একটি কিডনি সংক্রান্ত রোগগুলো। সাধারণ অভ্যাস’বশতই নারীদের মধ্যে পর্যাপ্ত পানি পান করতে দেখা যায় না। ফল’শ্রুতিতে সমস্যার কঠিন রূপ নিতে পারে কিডনির বিভিন্ন সমস্যার মাধ্যমে। তাই নির্দিষ্ট পানি পান যেমন জরুরি, খেয়াল রাখা উচিত কিডনিরও।

বয়স কোনো ব্যাপার নয়, সচেতন’তাই মুখ্য। তাই নারীর এই সমস্যাগুলোর দিকে সবার, বিশেষত ঘরের পুরুষ সদস্যটির নজর দেয়া জরুরি, যাতে সব’সময় যত্নে রাখা মানুষটি বড় কোনো সমস্যায় না পড়েন। নারীর প্রতি সামান্য সচেতন’তাই পারে তাকে সুস্থ ও সুন্দর রাখতে।

আরোও পড়ুন

পুরুষের যেসব স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা জরুরি

মেরু’দণ্ডের টিউমারে মৃত্যুঝুঁকি কতটা

মুহূর্তেই মাথা’ব্যথা কমাবে যে মসলা

ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ করবে শীতের যে সবজি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

নারীর জন্য প্রয়োজনীয় কিছু স্বাস্থ্য পরীক্ষা

আপডেট সময় : ১২:১৮:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

মা, বোন, স্ত্রী কিংবা প্রেমিকা- যে নামেই ডাকা হোক নারীর সঙ্গে মায়া, মমতা আর ভালো’বাসার রয়েছে ভিন্নরকম যোগসূত্র। পরিবার কিংবা কাছের মানুষ’টির জন্য সর্বস্ব দিয়ে ভালো রাখার চেষ্টার ত্রুটি থাকে না তাদের। কিন্তু নিজের বেলায়? নিজের যত্নের বরা’বরই বড্ড আনাড়ি এই মানুষগুলো।

তাই স্বাস্থ্য সমস্যায় নারী’দেরই বেশিরভাগ ভুগতে দেখা যায় বিভিন্ন সময়। তাই নারী দিবসে আনন্দ’ধারার বিশেষ আয়োজনের স্বাস্থ্য’লেখায় থাকছে নারীর জন্য প্রয়োজনীয় ১০ স্বাস্থ্যপরীক্ষার কথা।

সাধারণত চল্লিশোর্ধ্ব নারী’দের এই ধরনের সমস্যা দেখা গেলেও এখন স্বাস্থ্যের প্রতি অব’হেলাসহ বিভিন্ন কারণে বেশ অল্প বয়সেই বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যায় ভুগছেন নারী’রা। তাই এখনই সময় আগেভাগে জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার।

থাইরয়েডে সক্রিয়তা

বর্তমান সময়ে যে স্বাস্থ্য সমস্যাটি আজ’কের নারী বেশি মোকাবেলা করে থাকেন তা হলো থাই’রয়েড সমস্যা। কিছু মহিলা হাইপোথ্যারয়ডিজমে ভোগেন আবার কিছু মহিলা হাইপারথ্যারয়ডিজমে।

পা ফোলা, হাত-পা ও জয়েন্ট’গুলোতে ব্যথা থাইরয়েড সমস্যার সাধারণ উপসর্গ। এছাড়া অতিরিক্ত ওজন থাকলেও হাইরয়েডের পরীক্ষা করিয়ে নেয়া উচিত আগেভাগেই।

প্যাপ স্মিয়ার

নারী’দের মধ্যে যেসব ক্যান্সারের ঝুঁকি দিনে দিনে বাড়ছে তার মধ্যে অন্যতম হলো সার্ভি’ক্যাল ক্যান্সার। আর সার্ভিক্যাল ক্যান্সার রোধেই করা হয় প্যাপ স্মিয়ার পরীক্ষাটি। এটি একটি অত্যন্ত সহজ পরীক্ষা যা অধিকাংশ সাধারণ মানুষই উপেক্ষা করে থাকে।

প্যাপ স্মিয়ার পরীক্ষা চল্লিশোর্ধ্ব মহিলা’দের আবশ্যক কারণ এই পরীক্ষা সার্ভিকাল ক্যান্সারে’র ঝুঁকি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। তিরিশ বছরের ঊর্ধ্বে মহিলা’রা এই পরীক্ষা শুরু করতে পারেন কিন্তু চল্লিশ পেরোলে এই পরীক্ষা দুই-তিন বছরে একবার করা খুবই আবশ্যক।

ম্যামোগ্রাম

স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত নারীর সংখ্যা বিশেষত চল্লি’শোর্ধ্ব মহিলাদের মধ্যে বৃদ্ধি পাচ্ছে। পুরো বিশ্ব জুড়েই। তাই স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধ করার জন্য সবচেয়ে ভালো উপায় হলো একটি সহজ ম্যামোগ্রাম পরীক্ষা। যদি পরিবারে ক্যান্সা’রের ইতিহাস থেকে থাকে তবে এই পরীক্ষা করে নেয়া অতি আবশ্যক।

হৃদরোগ

চল্লিশ পেরোলেই নিয়’মিত হৃদযন্ত্রের পরীক্ষা ও হৃদস্পন্দন নিয়ন্ত্রণে রাখা প্রয়োজন। নিয়মিত চেকআপে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট থেকে আকস্মিক মৃত্যু প্রতিরোধ করা যায়। এছাড়া হৃদ’যন্ত্র সুস্থ রাখে এমন খাবারগুলো সম্পর্কে জেনে নিয়ে সেই অনুযায়ী খাদ্যা’ভ্যাস ঠিক করে নিতে হবে কোলেস্টেরল ও অন্যান্য সমস্যা থাকলে।

হাড়ের ঘনত্ব/ভিটামিন ডি স্বল্পতা

বয়স বাড়ার সঙ্গে হাড়ের অবনতি শুরু হতে থাকে। বিশেষত নারী শরীরের। চল্লি’শের পরে হাড়ের ঘনত্বের পরীক্ষা অত্যন্ত দরকারী। এটি অস্থি’ভঙ্গ প্রতিরোধ করে। এছাড়া ভিটামিন ডি-এর অভাবে হাড়ে ক্ষয় এবং অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি বাড়ে।

চল্লিশোর্ধ্ব মহিলাদের ভিটামিন ‘ডি’-এর বেশি প্রয়োজন যা ক্যাল’সিয়াম শোষণ করে এবং হাড়ের ক্ষয় রোধ করে। তাই ভিটামিন ডি-এর মাত্রা পরীক্ষা করা খুবই প্রয়োজন।

ডায়াবেটিস

চল্লিশোর্ধ্ব মহিলারা টাইপ-টু ডায়াবেটিসে বেশি আক্রান্ত হন। শরীর গ্লুকোজের সমত্ব বজায় রাখার জন্য যথেষ্ট ইনসুলিন উৎপাদন করতে পারে না, তাই ডায়াবেটিসের হানা রুখতে প্রয়ো’জনীয় পরীক্ষা অত্যন্ত জরুরি। খাদ্যাভ্যাস ও নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রমও জরুরি সবার ভালো থাকার স্বার্থেই।

ওভারিয়ান ক্যান্সার

মহিলা’দের মধ্যে ওভারিয়ান ক্যান্সার বেশিরভাগই মেনোপজের পরে দেখা যায়। তাই ওভারিয়ান ক্যান্সারের ঝুঁকি এড়াতে ঋতুজরার আগেই মহিলা’দের নির্দিষ্ট পরীক্ষা করিয়ে নেয়া উচিত।

রক্তচাপ ও চোখ

মহিলা’দের মাসিক বন্ধ হওয়ার পরে উচ্চ রক্তচাপের প্রবণতা খুব বেশি মাত্রায় দেখা যায়। তাই তার আগেই এটিকে নিয়ন্ত্রণে আনা প্রয়োজন। চল্লিশে পৌঁছলেই নিয়মিত পরীক্ষা’র মাধ্যমে রক্তচাপে নজর রাখা আবশ্যক।

এছাড়া বয়সের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দৃষ্টিশক্তি হ্রাস পেতে শুরু করে। দৃষ্টি ঝাপসা এবং চোখ শুষ্ক হতে আরম্ভ করে। এছাড়া ছানি বা গ্লুকোমা ক্রমে দেখা দিতে পারে আর তাই চল্লিশ পেরো’লেই নিয়মিত চোখের পরীক্ষা ভীষণ জরুরি। ডায়াবেটিস থাকলে চোখের সমস্যার ব্যাপারে অতিরিক্ত সচেতন হতে হবে অবশ্যই।

কিডনি

নীরব ঘাতক হিসেবে কাজ করে যাওয়া রোগগুলোর মধ্যে একটি কিডনি সংক্রান্ত রোগগুলো। সাধারণ অভ্যাস’বশতই নারীদের মধ্যে পর্যাপ্ত পানি পান করতে দেখা যায় না। ফল’শ্রুতিতে সমস্যার কঠিন রূপ নিতে পারে কিডনির বিভিন্ন সমস্যার মাধ্যমে। তাই নির্দিষ্ট পানি পান যেমন জরুরি, খেয়াল রাখা উচিত কিডনিরও।

বয়স কোনো ব্যাপার নয়, সচেতন’তাই মুখ্য। তাই নারীর এই সমস্যাগুলোর দিকে সবার, বিশেষত ঘরের পুরুষ সদস্যটির নজর দেয়া জরুরি, যাতে সব’সময় যত্নে রাখা মানুষটি বড় কোনো সমস্যায় না পড়েন। নারীর প্রতি সামান্য সচেতন’তাই পারে তাকে সুস্থ ও সুন্দর রাখতে।

আরোও পড়ুন

পুরুষের যেসব স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা জরুরি

মেরু’দণ্ডের টিউমারে মৃত্যুঝুঁকি কতটা

মুহূর্তেই মাথা’ব্যথা কমাবে যে মসলা

ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ করবে শীতের যে সবজি