ঢাকা ০৯:১১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ ::
যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম আইএমও এর প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা’র আদর্শ বাস্তবায়ন তরুনদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে নড়াইল-১আসনে আবারো আ’লীগের মনোনয়ন পেলেন বিএম কবিরুল হক মুক্তি খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা ছিলেন বহুমাত্রিকগুনের অধিকারী : অধ্যাপক ড. এম শমসের আলী ফের নৌকার টিকিট পেলেন রাজী মোহাম্মদ ফখরুল পি‌রোজপু‌রে ফেজবু‌কে স্টাটার্স দি‌য়ে অনার্স পড়ুয়া ছা‌ত্রের আত্মহত্যা যেভাবে জানা যাবে এইচএসসির ফল > How to know HSC result নেত্রকোণা -২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ওমর ফারুক জনপ্রিয়তার শীর্ষে চাটখিলে যুবলীগের ৫১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত দিনব্যাপী গণসংযোগ করলেন নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহ্ কুতুবউদ্দিন তালুকদার রুয়েল

বুক পেতে দেবো গুলি খাবো রাজপথ ছাড়বোনা: মির্জা আব্বাস

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৫০:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮৪ বার পড়া হয়েছে

বুক পেতে দেবো গুলি খাবো রাজপথ ছাড়বোনা: মির্জা আব্বাস

দেশের সময়২৪ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন বিএনপির চলমান আন্দোলন, মিছিল, মিটিং ঢাকার প্রতিটা অলিগলিতে হবে। যদি কেউ গুলি করে তাহলে বুক পেতে দেবো গুলি খাবো তবুও রাজপথ ছাড়বো না। এই রাজপথকে আর আওয়ামী লীগের হাতে ছেড়ে দেবো না। জ্বালানি তেল ও নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে ভোলা ও নারায়ণগঞ্জে আমাদের তিনজন নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে।

সিস্টেম করে এই দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে তারা। বিএনপির লাখ লাখ নেতাকর্মীর নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। এই যে মামলা, গোলাগুলি করছে। এসব সহজে আমরা ছেড়ে দেবো না। আমরাও ভিন্ন প্রক্রিয়া নেবো। এরশাদের শাসনামলের আন্দোলন প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন আন্দোলন সবসময় এক রকম হয় না। আমরাও ভিন্ন পন্থা নেবো।

সোমবার(১২ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। জ্বালানি তেল সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং ভোলায় পুলিশের গুলিতে ছাত্রদল নেতা নূরে আলম, সেচ্ছাসেবক দল নেতা আব্দুর রহিম ও নারায়ণগঞ্জ যুবদলের নেতা শাওন প্রধান হত্যার প্রতিবাদ ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সামনে এ সমাবেশ করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি।

সমাবেশে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মির্জা আব্বাস বলেন, আপনারা দেখেছেন জনগণের অধিকারের জন্য বিএনপি দীর্ঘদিন প্রতিবাদ করছে, আন্দোলন করছে তবুও আওয়ামী লীগ সরকারের টনক নড়ছে না। সত্যিকার অর্থে আন্দোলন দেখে সরকার ভয় পেয়ে গেছে।

তাই তারা গুলি করে হত্যা করছে। তিনি বলেন, মানুষ হত্যা কখন করে জানেন? সাপ যখন ভয় পায় তখন ছোবল দেয়। আর এই সরকারও বিএনপির মিছিল মিটিং দেখে ভয় পেয়ে মানুষকে হত্যা করছে, দমন পীড়ন চালাচ্ছে।

তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী ভারত গেলেন, তাকে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন ভারতের একজন প্রতিমন্ত্রী। আসলে ভারতও এখন বুঝে গেছে বাংলাদেশের জনগণের কাছে আর এই সরকারের দাম নাই। ভারতে গিয়ে তিনি কি চুক্তি করলেন?

আপনারা পানি নিয়ে কথা বললেন না, তিস্তা নিয়ে কথা বললেন না। কি নিয়ে কথা বললেন? আগেই আপনাদের সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলে রেখেছেন ভারত আপনাদেরকে ক্ষমতায় টিকিয়ে রাখবে। তাই এখন আপনারা দেশের জন্য কোন চুক্তি করেননি।

তিনি বলেন, আমরা বলতে চাই এ দেশের জনগণ ছাড়া কেউ ক্ষমতায় আনতে পারবে না। এ দেশের জনগণ আওয়ামী লীগকে ভোট দিবে না এটা ভাল করেই জানে তারা। এ দেশের মানুষ বিএনপিকে ভালবাসে। তাই বিএনপিকেই জনগণ ক্ষমতায় দেখতে চায়।

ইভিএম প্রসঙ্গে মির্জা আব্বাস বলেন, বাংলাদেশে আর ইভিএম এর চেষ্টা করবেন না। এই ইভিএম আমরা মানি না। এই সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন হবে না।

এই নির্বাচন কমিশনও আমরা মানিনা। নতুন সরকার গঠন হবে। নতুন নির্বাচন কমিশন হবে সেই সরকারের অধীনে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, স্বেচ্ছাসেবী বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সফু ও সঞ্চালনা করেন বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বুক পেতে দেবো গুলি খাবো রাজপথ ছাড়বোনা: মির্জা আব্বাস

আপডেট সময় : ০৮:৫০:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন বিএনপির চলমান আন্দোলন, মিছিল, মিটিং ঢাকার প্রতিটা অলিগলিতে হবে। যদি কেউ গুলি করে তাহলে বুক পেতে দেবো গুলি খাবো তবুও রাজপথ ছাড়বো না। এই রাজপথকে আর আওয়ামী লীগের হাতে ছেড়ে দেবো না। জ্বালানি তেল ও নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে ভোলা ও নারায়ণগঞ্জে আমাদের তিনজন নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে।

সিস্টেম করে এই দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে তারা। বিএনপির লাখ লাখ নেতাকর্মীর নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। এই যে মামলা, গোলাগুলি করছে। এসব সহজে আমরা ছেড়ে দেবো না। আমরাও ভিন্ন প্রক্রিয়া নেবো। এরশাদের শাসনামলের আন্দোলন প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন আন্দোলন সবসময় এক রকম হয় না। আমরাও ভিন্ন পন্থা নেবো।

সোমবার(১২ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। জ্বালানি তেল সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং ভোলায় পুলিশের গুলিতে ছাত্রদল নেতা নূরে আলম, সেচ্ছাসেবক দল নেতা আব্দুর রহিম ও নারায়ণগঞ্জ যুবদলের নেতা শাওন প্রধান হত্যার প্রতিবাদ ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সামনে এ সমাবেশ করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি।

সমাবেশে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মির্জা আব্বাস বলেন, আপনারা দেখেছেন জনগণের অধিকারের জন্য বিএনপি দীর্ঘদিন প্রতিবাদ করছে, আন্দোলন করছে তবুও আওয়ামী লীগ সরকারের টনক নড়ছে না। সত্যিকার অর্থে আন্দোলন দেখে সরকার ভয় পেয়ে গেছে।

তাই তারা গুলি করে হত্যা করছে। তিনি বলেন, মানুষ হত্যা কখন করে জানেন? সাপ যখন ভয় পায় তখন ছোবল দেয়। আর এই সরকারও বিএনপির মিছিল মিটিং দেখে ভয় পেয়ে মানুষকে হত্যা করছে, দমন পীড়ন চালাচ্ছে।

তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী ভারত গেলেন, তাকে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন ভারতের একজন প্রতিমন্ত্রী। আসলে ভারতও এখন বুঝে গেছে বাংলাদেশের জনগণের কাছে আর এই সরকারের দাম নাই। ভারতে গিয়ে তিনি কি চুক্তি করলেন?

আপনারা পানি নিয়ে কথা বললেন না, তিস্তা নিয়ে কথা বললেন না। কি নিয়ে কথা বললেন? আগেই আপনাদের সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলে রেখেছেন ভারত আপনাদেরকে ক্ষমতায় টিকিয়ে রাখবে। তাই এখন আপনারা দেশের জন্য কোন চুক্তি করেননি।

তিনি বলেন, আমরা বলতে চাই এ দেশের জনগণ ছাড়া কেউ ক্ষমতায় আনতে পারবে না। এ দেশের জনগণ আওয়ামী লীগকে ভোট দিবে না এটা ভাল করেই জানে তারা। এ দেশের মানুষ বিএনপিকে ভালবাসে। তাই বিএনপিকেই জনগণ ক্ষমতায় দেখতে চায়।

ইভিএম প্রসঙ্গে মির্জা আব্বাস বলেন, বাংলাদেশে আর ইভিএম এর চেষ্টা করবেন না। এই ইভিএম আমরা মানি না। এই সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন হবে না।

এই নির্বাচন কমিশনও আমরা মানিনা। নতুন সরকার গঠন হবে। নতুন নির্বাচন কমিশন হবে সেই সরকারের অধীনে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, স্বেচ্ছাসেবী বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সফু ও সঞ্চালনা করেন বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু।